আমাদের পেকুয়া নিউজপেকুয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৫জনকে কুপিয়ে জখম | আমাদের পেকুয়া নিউজ পেকুয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৫জনকে কুপিয়ে জখম | আমাদের পেকুয়া নিউজ

শিরোনাম : আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কঠোর হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দেশে দেশে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কাউন্সিলর গরীবদের ফিরিয়ে দিলেও দোকান থেকে খাদ্য কিনে দিলেন ভাইস চেয়ারম্যান জেসি চৌধুরী চকরিয়ায় কর্মহীন ৫০০ শ্রমজীবি মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পাঠালেন যুবলীগ নেতা কছির চকরিয়া পৌরসভার কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ উদ্বোধনে মেয়র আলমগীর চৌধুরী চকরিয়ায় রাইসমিল থেকে ৪১ মেট্টিক টন নিন্মমানের চাল জব্দ, মালিককে জরিমানা কাল ভি‌ডিও কনফা‌রেন্সে আসছেন প্রধানমন্ত্রী ব্যক্তিগত উদ্যোগে চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের সুরক্ষা উপকরণ তুলে দিলেন সাংসদ জাফর আলম

পেকুয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৫জনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশ: ২০২০-০২-০৯ ১৮:৩৮:৪১ || আপডেট: ২০২০-০২-০৯ ১৮:৩৮:৪৮

নিজস্ব প্রতিবেদক, পেকুয়া:

পেকুয়ায় ভোলাখালের জেগে উঠা চরের জায়গা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ছাত্রলীগ ইউনিয়ন শাখার সভাপতি, কলেজ ও স্কুল ছাত্রসহ অন্তত ৫ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে দু’জন নারীও রয়েছেন। পেকুয়া থানা পুলিশ সকালে দেখতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। ঘটনার জের ধরে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ক্ষমতাসীনদল আ’লীগের পেকুয়ার শত শত নেতা-কর্মী হাসপাতালে ভীড় করে। তারা ছাত্রলীগ নেতা মনছুর আলম নানকসহ জখমীদের দেখতে সকালে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছিলেন।

৯ ফেব্রুয়ারী (রবিবার) ভোর ৬ টার দিকে উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের বাইন্যাঘোনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, বাইন্যাঘোনা গ্রামের মো: কালু মিয়ার ছেলে ছাত্রলীগ মগনামা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মনছুর আলম নানক (২৫), তার মা পাখি আক্তার (৪৮), বোন রুজিনা আক্তার (২৩), ভাই পেকুয়া জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের একাদশ বর্ষের ছাত্র আলী হোসেন (১৮) ও ছোট ভাই পেকুয়া সরকারী জিএমসি ইনষ্টিটিউশনের ৯ম শ্রেনীর ছাত্র কবির হোসেন (১৪)। এদের মধ্যে মনছুর আলম নানকের দু’সহোদর পেকুয়া জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের ছাত্র আলী হোসেন ও জিএমসির ৯ম শ্রেনীর ছাত্র কবির হোসেনকে চমেক হাসপাতালে রেফার করে।

পারিবারিক সুত্র জানায়, এ দু’জনকে মারাত্মকভাবে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এক ছাত্রের হাতের দুটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে। অন্যজনকে কুপিয়ে মাথায় জখম করায় তার অবস্থাও গুরুতর বলে নিশ্চিত করেছে। মনছুর আলম নানকের মা পাখি আক্তারকেও মাথায় কুপিয়ে জখম করা হয়েছে।

স্থানীয় সুত্র জানায়, বাইন্যাঘোনায় ভোলাখালের জেগে উঠা চরের জমির মালিকানা নিয়ে মো: কালু গং ও আবদুল মজিদ গংদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ১ নং খাস খতিয়ানভূক্ত জমি ভূমিহীন কোটায় মো: কালুর অনুকুলে সরকার বন্দোবস্তীমূলে দলিল হস্তান্তর করে। ৪০ শতক জায়গা কালু গং নিয়ন্ত্রণ করছিলেন। ঘটনার দিন সকালে আবদুল মজিদ গং জমিতে স্থাপনা নির্মাণকাজ বাস্তবায়নে চেষ্টা চালায়। এ সময় কালু গং বাধা দেয়। এর সুত্র ধরে একই এলাকার মৃত একরাম মিয়ার ছেলে আবদুল মজিদ তার ভাই রশিদ আহমদ, কামাল হোসেনসহ ১০/১২ জনের দুবৃর্ত্তরা লাঠি সোটা, দেশীয় অস্ত্র- স্বস্ত্র নিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে।

ছাত্রলীগ মগনামা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মনছুর আলম নানক জানায়, তারা পরিকল্পিতভাবে আমাদের উপর এ বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে। আমার বাবা ভূমিহীন তাকে সরকার খাস জমি বরাদ্ধ দিয়েছে। এ জমিতে আমাদের নামে খতিয়ানও প্রচার আছে। রশিদ আহমদ ও তার দু’ভাই আব্দুল মজিদ একশ কানিরও বেশি জমির মালিক। তারা কোটিপতি। এখন আমাদের জায়গায় তারা অবৈধ জবর দখল করার চেষ্টা করছে। থানায় বিচারও আছে। সেখানে আমাদের পক্ষে যুক্তি উত্তাপিত হয়েছে। কিন্তু রাতে তারা ফের জায়গা দখলে গিয়েছিল। বাঁধা দিতে গিয়ে আমাদের উপর হামলা করেছে। তারা বিএনপি-জামাতের পৃষ্টপোষক। এখন আমরা অসহায়। টাকা ও ক্ষমতা এরাই ব্যবহার করছে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কফিল উদ্দিন বাহাদুর জানায়, মনছুর আলম নানক তার শিক্ষার্থী দু’ভাই, মা বোনকে নিষ্টুরভাবে হামলা চালিয়েছে হামলাকারীরা। তারা ধনবান ও প্রভাবশালী হওয়ায় সবকিছু এরাই নিয়ন্ত্রণ করছে। আমি এ হামলায় খুবই মর্মাহত হয়েছি। এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল আজম জানায়, এখনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগ :

সম্পাদকীয় বার্তা

error: কপি করা আইনত অপরাধ